۞ সুরা ৭১۞ ‏نوح‎ ۞ নূহ ۞ নবী নূহ ۞ Nuh ۞
  1. بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

    বিছমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

    আল্লাহর নাম নিয়ে (আরম্ভ করছি)

    শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।

    In the name of Allah, the Entirely Merciful, the Especially Merciful.

  2. بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ إِنَّا أَرْسَلْنَا نُوحًا إِلَىٰ قَوْمِهِ أَنْ أَنْذِرْ قَوْمَكَ مِنْ قَبْلِ أَنْ يَأْتِيَهُمْ عَذَابٌ أَلِيمٌ

    ইন্নাআরছালনা-নূহান ইলা-কাওমিহীআন আনযিরকাওমাকা মিন কাবলি আইঁ ইয়া’তিয়াহুম ‘আযা-বুন আলীম।

    নিঃসন্দেহ আমরা নূহ্‌কে তাঁর লোকদলের কাছে পাঠিয়েছিলাম এই বলে -- ''তোমার লোকদলকে সতর্ক করে দাও তাদের উপরে মর্মন্তুদ শাস্তি আসবার আগে।’’

    আমি নূহকে প্রেরণ করেছিলাম তাঁর সম্প্রদায়ের প্রতি একথা বলেঃ তুমি তোমার সম্প্রদায়কে সতর্ক কর, তাদের প্রতি মর্মন্তদ শাস্তি আসার আগে।

    Indeed, We sent Noah to his people, [saying], "Warn your people before there comes to them a painful punishment."

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১
  3. قَالَ يَا قَوْمِ إِنِّي لَكُمْ نَذِيرٌ مُبِينٌ

    কা-লা ইয়া- কাওমি ইন্নী লাকুম নাযীরুম মুবীন।

    তিনি বলেছিলেন -- ''হে আমার স্বজাতি! নিঃসন্দেহ আমি তোমাদের জন্য একজন স্পষ্ট সতর্ককারী, --

    সে বলল, হে আমার সম্প্রদায়! আমি তোমাদের জন্যে স্পষ্ট সতর্ককারী।

    He said, "O my people, indeed I am to you a clear warner,

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ২
  4. أَنِ اعْبُدُوا اللَّهَ وَاتَّقُوهُ وَأَطِيعُونِ

    আনি‘বুদুল্লা-হা ওয়াত্তাকূহু ওয়া আতী‘ঊন।

    'এ বিষয়ে যে তোমরা আল্লাহ্‌র উপাসনা করো ও তাঁকে ভয়-ভক্তি করো, আর আমাকে মেনে চলো।

    এ বিষয়ে যে, তোমরা আল্লাহ তা'আলার এবাদত কর, তাঁকে ভয় কর এবং আমার আনুগত্য কর।

    [Saying], ''Worship Allah, fear Him and obey me.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৩
  5. يَغْفِرْ لَكُمْ مِنْ ذُنُوبِكُمْ وَيُؤَخِّرْكُمْ إِلَىٰ أَجَلٍ مُسَمًّى ۚ إِنَّ أَجَلَ اللَّهِ إِذَا جَاءَ لَا يُؤَخَّرُ ۖ لَوْ كُنْتُمْ تَعْلَمُونَ

    ইয়াগফিরলাকুম মিন যুনূবিকুম ওয়া ইউআখখিরকুম ইলাআজালিম মুছাম্মা- ইন্না আজালাল্লা-হি ইযা-জাআ লা-ইউআখখার । লাও কুনতুম তা‘লামূন।

    'তিনি তোমাদের পাপগুলোর কতকটা ক্ষমা করবেন এবং তোমাদের বিরাম দেবেন এক নির্ধারিত কাল পর্যন্ত। নিঃসন্দেহ আল্লাহ্‌র নির্ধারণ করা কাল যখন এসে পড়ে তখন তা পিছিয়ে দেওয়া যায় না, -- যদি তোমরা জানতে!’’

    আল্লাহ তা'আলা তোমাদের পাপসমূহ ক্ষমা করবেন এবং নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত অবকাশ দিবেন। নিশ্চয় আল্লাহ তা'আলার নির্দিষ্টকাল যখন হবে, তখন অবকাশ দেয়া হবে না, যদি তোমরা তা জানতে!

    Allah will forgive you of your sins and delay you for a specified term. Indeed, the time [set by] Allah, when it comes, will not be delayed, if you only knew.'' "

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৪
  6. قَالَ رَبِّ إِنِّي دَعَوْتُ قَوْمِي لَيْلًا وَنَهَارًا

    কা-লা রাব্বি ইন্নী দা‘আওতুকাওমী লাইলাওঁ ওয়া নাহা-রা- ।

    তিনি বললেন -- ''আমার প্রভূ! আমি তো আমার স্বজাতিকে রাতে ও দিনে আহ্বান করেছি,

    সে বললঃ হে আমার পালনকর্তা! আমি আমার সম্প্রদায়কে দিবারাত্রি দাওয়াত দিয়েছি;

    He said, "My Lord, indeed I invited my people [to truth] night and day.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৫
  7. فَلَمْ يَزِدْهُمْ دُعَائِي إِلَّا فِرَارًا

    ফালাম ইয়াঝিদহুম দু‘আঈইল্লা-ফিরা-রা-।

    'কিন্ত আমার ডাক তাদের পালিয়ে যাওয়া ছাড়া আর কিছুই বাড়ায় নি।

    কিন্তু আমার দাওয়াত তাদের পলায়নকেই বৃদ্ধি করেছে।

    But my invitation increased them not except in flight.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৬
  8. وَإِنِّي كُلَّمَا دَعَوْتُهُمْ لِتَغْفِرَ لَهُمْ جَعَلُوا أَصَابِعَهُمْ فِي آذَانِهِمْ وَاسْتَغْشَوْا ثِيَابَهُمْ وَأَصَرُّوا وَاسْتَكْبَرُوا اسْتِكْبَارًا

    ওয়া ইন্নী কুল্লামা-দা‘আওতুহুম লিতাগফিরালাহুম জা‘আলূআসা-বি‘আহুম ফীআ-যানিহিম ওয়াছতাগশাও ছিয়া-বাহুম ওয়া আছাররূ ওয়াছতাকবারুছ তিকবা-রা- ।

    'আর নিশ্চয় যখনই আমি তাদের আহ্বান করেছি যেন তুমি তাদের ক্ষমা করতে পার, তারা তাদের কানের ভেতরে তাদের আঙ্গুলগুলো ভরে দেয়, আর তাদের কাপড় দিয়ে নিজেদের ঢেকে ফেলে, আর গোঁ ধরে, আর সগর্বে গর্ব করে।

    আমি যতবারই তাদেরকে দাওয়াত দিয়েছি, যাতে আপনি তাদেরকে ক্ষমা করেন, ততবারই তারা কানে অঙ্গুলি দিয়েছে, মুখমন্ডল বস্ত্রাবৃত করেছে, জেদ করেছে এবং খুব ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করেছে।

    And indeed, every time I invited them that You may forgive them, they put their fingers in their ears, covered themselves with their garments, persisted, and were arrogant with [great] arrogance.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৭
  9. ثُمَّ إِنِّي دَعَوْتُهُمْ جِهَارًا

    ছু ম্মা ইন্নী- দা‘আওতুহুম জিহা-রা- ।

    'তারপর আমি নিশ্চয় তাদের আহ্বান করেছি উঁচু গলায়,

    অতঃপর আমি তাদেরকে প্রকাশ্যে দাওয়াত দিয়েছি,

    Then I invited them publicly.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৮
  10. ثُمَّ إِنِّي أَعْلَنْتُ لَهُمْ وَأَسْرَرْتُ لَهُمْ إِسْرَارًا

    ছু ম্মা ইন্নীআ‘লানতুলাহুম ওয়া আছরারতুলাহুম ইছরা-রা-।

    'তারপর নিশ্চয় আমি তাদের কাছে ঘোষণা করেছি, আর আমি তাদের সঙ্গে গোপনে গোপন কথা বলেছি,

    অতঃপর আমি ঘোষণা সহকারে প্রচার করেছি এবং গোপনে চুপিসারে বলেছি।

    Then I announced to them and [also] confided to them secretly

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ৯
  11. فَقُلْتُ اسْتَغْفِرُوا رَبَّكُمْ إِنَّهُ كَانَ غَفَّارًا

    ফাকুলতুছতাগফিরূ রাব্বাকুম ইন্নাহূকা-না গাফফা-রা-।

    'আর আমি বলেছি -- তোমাদের প্রভুর কাছে পরিত্রাণ খোঁজো, নিশ্চয় তিনি হচ্ছেন পরম ক্ষমাশীল।

    অতঃপর বলেছিঃ তোমরা তোমাদের পালনকর্তার ক্ষমা প্রার্থনা কর। তিনি অত্যন্ত ক্ষমাশীল।

    And said, ''Ask forgiveness of your Lord. Indeed, He is ever a Perpetual Forgiver.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১০
  12. يُرْسِلِ السَّمَاءَ عَلَيْكُمْ مِدْرَارًا

    ইউরছিলিছ ছামাআ ‘আলাইকুম মিদরা-রা- ।

    'তিনি তোমাদের উপরে বৃষ্টি পাঠাবেন প্রচুর পরিমাণে,

    তিনি তোমাদের উপর অজস্র বৃষ্টিধারা ছেড়ে দিবেন,

    He will send [rain from] the sky upon you in [continuing] showers

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১১
  13. وَيُمْدِدْكُمْ بِأَمْوَالٍ وَبَنِينَ وَيَجْعَلْ لَكُمْ جَنَّاتٍ وَيَجْعَلْ لَكُمْ أَنْهَارًا

    ওয়া ইউমদিদকুম বিআমওয়া-লিওঁ ওয়াবানীনা ওয়া ইয়াজ‘আল্লাকুমজান্না-তিওঁ ওয়া ইয়াজ‘আল্লাকুম আনহা-রা- ।

    'আর তোমাদের সমৃদ্ধ করবেন ধনদৌলত ও সন্তানসন্ততি দিয়ে, আর তোমাদের জন্য তৈরি করবেন বাগানসমূহ, আর তোমাদের জন্য স্থাপন করবেন নদী-নালা।

    তোমাদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি বাড়িয়ে দিবেন, তোমাদের জন্যে উদ্যান স্থাপন করবেন এবং তোমাদের জন্যে নদীনালা প্রবাহিত করবেন।

    And give you increase in wealth and children and provide for you gardens and provide for you rivers.

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১২
  14. مَا لَكُمْ لَا تَرْجُونَ لِلَّهِ وَقَارًا

    মা-লাকুম লা-তারজূনা লিল্লা-হি ওয়াকা-রা- ।

    'তোমাদের কী হয়েছে যে তোমরা আল্লাহ্‌র পক্ষ থেকে শ্রেষ্ঠত্ব স্বীকার করতে চাইছ না,

    তোমাদের কি হল যে, তোমরা আল্লাহ তা'আলার শ্রেষ্টত্ব আশা করছ না।

    What is [the matter] with you that you do not attribute to Allah [due] grandeur

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১৩
  15. وَقَدْ خَلَقَكُمْ أَطْوَارًا

    ওয়া কাদ খালাকাকুম আতওয়া-রা- ।

    'অথচ তিনি তোমাদের সৃষ্টি করেইছেন স্তরে-স্তরে।

    অথচ তিনি তোমাদেরকে বিভিন্ন রকমে সৃষ্টি করেছেন।

    While He has created you in stages?

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১৪
  16. أَلَمْ تَرَوْا كَيْفَ خَلَقَ اللَّهُ سَبْعَ سَمَاوَاتٍ طِبَاقًا

    আলাম তারাও কাইফা খালাকাল্লা-হু ছাব‘আ ছামা-ওয়া-তিন তিবা-কা-।

    'তোমরা কি লক্ষ্য কর নি কিভাবে আল্লাহ্ সাত আসমানকে সৃষ্টি করেছেন সুবিন্যস্তভাবে,

    তোমরা কি লক্ষ্য কর না যে, আল্লাহ কিভাবে সপ্ত আকাশ স্তরে স্তরে সৃষ্টি করেছেন।

    Do you not consider how Allah has created seven heavens in layers

    পারা : ২৯ সুরা ৭১ আয়াত ১৫
50%