۞ সুরা ২৩۞ ‏المؤمنون‎ ۞ মু'মিনুন ۞ মুমিনগণ ۞ al-Mu'minun ۞
  1. بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

    বিছমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

    আল্লাহর নাম নিয়ে (আরম্ভ করছি)

    শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।

    In the name of Allah, the Entirely Merciful, the Especially Merciful.

  2. بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ قَدْ أَفْلَحَ الْمُؤْمِنُونَ

    কাদ আফলা হাল মু’মিনূন।

    মুমিনরা অবশ্য সাফল্যলাভ করেই চলছে, --

    মুমিনগণ সফলকাম হয়ে গেছে,

    Certainly will the believers have succeeded:

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১
  3. الَّذِينَ هُمْ فِي صَلَاتِهِمْ خَاشِعُونَ

    আল্লাযীনা হুম ফী সালা-তিহিম খা-শি‘ঊন,

    যারা স্বয়ং তাদের নামাযে বিনয়-নম্র হয়,

    যারা নিজেদের নামাযে বিনয়-নম্র;

    They who are during their prayer humbly submissive

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ২
  4. وَالَّذِينَ هُمْ عَنِ اللَّغْوِ مُعْرِضُونَ

    ওয়াল্লাযীনা হুম ‘আনিল লাগবি মু‘রিদূন।

    আর যারা অসার ক্রিয়াকলাপ থেকে নিজেরাই সরে থাকে,

    যারা অনর্থক কথা-বার্তায় নির্লিপ্ত,

    And they who turn away from ill speech

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৩
  5. وَالَّذِينَ هُمْ لِلزَّكَاةِ فَاعِلُونَ

    ওয়াল্লাযীনা হুম লিঝঝাকা-তি ফা-‘ইলূন।

    আর যারা স্বয়ং যাকাতদানে করিতকর্মা,

    যারা যাকাত দান করে থাকে

    And they who are observant of zakah

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৪
  6. وَالَّذِينَ هُمْ لِفُرُوجِهِمْ حَافِظُونَ

    ওয়াল্লাযীনা হুম লিফুরূজিহিম হা-ফিজূ ন।

    আর যারা নিজেরাই তাদের আঙ্গিক কর্তব্যাবলী সম্পর্কে যত্নবান, --

    এবং যারা নিজেদের যৌনাঙ্গকে সংযত রাখে।

    And they who guard their private parts

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৫
  7. إِلَّا عَلَىٰ أَزْوَاجِهِمْ أَوْ مَا مَلَكَتْ أَيْمَانُهُمْ فَإِنَّهُمْ غَيْرُ مَلُومِينَ

    ইল্লা-‘আলাআঝওয়া-জিহিম আও মা-মালাকাত আইমা-নুহুম ফাইন্নাহুম গাইরু মালূমীন।

    তবে নিজেদের দম্পতি অথবা তাদের ডানহাতে যাদের ধরে রেখেছে তাদের ছাড়া, কেননা সেক্ষেত্রে তারা নিন্দনীয় নহে,

    তবে তাদের স্ত্রী ও মালিকানাভুক্ত দাসীদের ক্ষেত্রে সংযত না রাখলে তারা তিরস্কৃত হবে না।

    Except from their wives or those their right hands possess, for indeed, they will not be blamed -

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৬
  8. فَمَنِ ابْتَغَىٰ وَرَاءَ ذَٰلِكَ فَأُولَٰئِكَ هُمُ الْعَادُونَ

    ফামানিবতাগা-ওয়ারাআ যা-লিকা ফাউলাইকা হুমুল ‘আ-দূন।

    কিন্ত যে এর বাইরে যাওয়া কামনা করে তাহলে তারা নিজেরাই হবে সীমালংঘনকারী।

    অতঃপর কেউ এদেরকে ছাড়া অন্যকে কামনা করলে তারা সীমালংঘনকারী হবে।

    But whoever seeks beyond that, then those are the transgressors -

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৭
  9. وَالَّذِينَ هُمْ لِأَمَانَاتِهِمْ وَعَهْدِهِمْ رَاعُونَ

    ওয়াল্লা যীনা হুম লিআমা-না-তিহিম ওয়া‘আহদিহিম রা-‘ঊন।

    আর যারা স্বয়ং তাদের আমানত সন্বন্ধে ও তাদের অংগীকার সন্বন্ধে সজাগ থাকে,

    এবং যারা আমানত ও অঙ্গীকার সম্পর্কে হুশিয়ার থাকে।

    And they who are to their trusts and their promises attentive

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৮
  10. وَالَّذِينَ هُمْ عَلَىٰ صَلَوَاتِهِمْ يُحَافِظُونَ

    ওয়াল্লাযীনা হুম ‘আলা-সালাওয়া-তিহিম ইউহা-ফিজূ ন।

    আর যারা নিজেরা তাদের নামায সন্বন্ধে সদা-যত্নবান।

    এবং যারা তাদের নামাযসমূহের খবর রাখে।

    And they who carefully maintain their prayers -

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ৯
  11. أُولَٰئِكَ هُمُ الْوَارِثُونَ

    উলাইকা হুমুল ওয়া-রিছূ ন।

    তারা নিজেরাই হবে পরম সেভাগ্যের অধিকারী, --

    তারাই উত্তরাধিকার লাভ করবে।

    Those are the inheritors

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১০
  12. الَّذِينَ يَرِثُونَ الْفِرْدَوْسَ هُمْ فِيهَا خَالِدُونَ

    আল্লাযীনা ইয়ারিছূনাল ফিরদাউছা হুম ফীহা-খা-লিদূ ন।

    যারা উত্তরাধিকার করবে বেহেশত, তাতে তারা থাকবে স্থায়ীভাবে।

    তারা শীতল ছায়াময় উদ্যানের উত্তরাধিকার লাভ করবে। তারা তাতে চিরকাল থাকবে।

    Who will inherit al-Firdaus. They will abide therein eternally.

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১১
  13. وَلَقَدْ خَلَقْنَا الْإِنْسَانَ مِنْ سُلَالَةٍ مِنْ طِينٍ

    ওয়ালাকাদ খালাকনাল ইনছা-না মিন ছুলা-লাতিম মিন তীন।

    আর আমরা নিশ্চয়ই মানুষকে সৃষ্টি করেছি কাদার নির্যাস থেকে,

    আমি মানুষকে মাটির সারাংশ থেকে সৃষ্টি করেছি।

    And certainly did We create man from an extract of clay.

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১২
  14. ثُمَّ جَعَلْنَاهُ نُطْفَةً فِي قَرَارٍ مَكِينٍ

    ছু ম্মা জা‘আলনা-হু নুতফাতান ফী কারা-রিম মাকীন।

    তারপর আমরা তাকে বানাই শুক্রকীট এক নিরাপদ অবস্থান স্থলে,

    অতঃপর আমি তাকে শুক্রবিন্দু রূপে এক সংরক্ষিত আধারে স্থাপন করেছি।

    Then We placed him as a sperm-drop in a firm lodging.

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১৩
  15. ثُمَّ خَلَقْنَا النُّطْفَةَ عَلَقَةً فَخَلَقْنَا الْعَلَقَةَ مُضْغَةً فَخَلَقْنَا الْمُضْغَةَ عِظَامًا فَكَسَوْنَا الْعِظَامَ لَحْمًا ثُمَّ أَنْشَأْنَاهُ خَلْقًا آخَرَ ۚ فَتَبَارَكَ اللَّهُ أَحْسَنُ الْخَالِقِينَ

    ছু ম্মা খালাকনান নুতফাতা ‘আলাকাতান ফাখালাকনাল ‘আলাকাতা মুদগাতান ফাখালাকনাল মুদগাতা ‘ইজা-মান ফাকাছাওনাল ‘ইজা-মা লাহমান ছু ম্মা আনশা’না-হু খালকান আ-খারা ফাতাবা-রাকাল্লা-হু আহছানুল খা-লিকীন।

    তারপর আমরা শুক্রকীটটিকে বানাই একটি রক্তপিন্ড, তারপর রক্তপিন্ডকে আমরা বানাই একটি মাংসের তাল, তারপর মাংসের তালে আমরা সৃষ্টি করি হাড়গোড়, তারপর হাড়গোড়কে আমরা ঢেকে দিই মাংসপেশী দিয়ে, তারপরে আমরা তাকে পরিণত করি অন্য এক সৃষ্টিতে। সেইজন্য আল্লাহ্‌রই অপার মহিমা, কত শ্রেষ্ঠ এই স্রষ্টা!

    এরপর আমি শুক্রবিন্দুকে জমাট রক্তরূপে সৃষ্টি করেছি, অতঃপর জমাট রক্তকে মাংসপিন্ডে পরিণত করেছি, এরপর সেই মাংসপিন্ড থেকে অস্থি সৃষ্টি করেছি, অতঃপর অস্থিকে মাংস দ্বারা আবৃত করেছি, অবশেষে তাকে নতুন রূপে দাঁড় করিয়েছি। নিপুণতম সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ কত কল্যাণময়।

    Then We made the sperm-drop into a clinging clot, and We made the clot into a lump [of flesh], and We made [from] the lump, bones, and We covered the bones with flesh; then We developed him into another creation. So blessed is Allah, the best of creators.

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১৪
  16. ثُمَّ إِنَّكُمْ بَعْدَ ذَٰلِكَ لَمَيِّتُونَ

    ছু ম্মা ইন্নাকুম বা‘দা যা-লিকা লামাইয়িতূন।

    তারপর নিঃসন্দেহ তোমরা এর পরে তো মৃত্যু বরণ করবে।

    এরপর তোমরা মৃত্যুবরণ করবে

    Then indeed, after that you are to die.

    পারা : ১৮ সুরা ২৩ আয়াত ১৫
12.5%